সার্চ কমিটির কাছে নাম জমা দিয়েছে বিএনপি

Print Friendly

নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটির কাছে নাম জমা দিয়েছে বিএনপি। আজ মঙ্গলবার মন্ত্রীপরিষদ সচিবালয়ে ৫ জনের নামের তালিকা পৌঁছে দেন দলটির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী ও চেয়ারপারসনের একান্ত সচিব আবদুস সাত্তার। তাৎক্ষণিকভাবে তালিকায় কাদের নাম রয়েছে সেটি জানা যায়নি।
রাজধানীর গুলশানে বিএনপির চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে গত রবিবার দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে নাম দেয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
গতকাল সোমবার রাতে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানান, বিএনপির পক্ষ থেকে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, নির্বাচন কমিশন গঠনে সার্চ কমিটির কাছে আমরা নাম দেব এবং এ বিষয়ে ২০ দলীয় শরিক দলগুলোর সঙ্গে কথা বলেছি। যারা রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপ করেছে তারাও পৃথকভাবে নাম প্রস্তাব করবেন।
রাজনৈতিক দলগুলোর কাছে সার্চ কমিটির নাম চাওয়ার পর বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া দলের নীতিনির্ধারকদের সঙ্গে বৈঠক করে ইতিবাচক সিদ্ধান্তে আসেন। দলের শরিক দলগুলোর সঙ্গেও এ নিয়ে আলোচনা হয়েছে।
রবিবারের স্থায়ী কমিটির বৈঠকে বিএনপির নীতিনির্ধারকদের কাছ থেকে পছন্দের নাম চেয়ে নেন খালেদা জিয়া। বৈঠকে নির্বাচন কমিশনার হিসেবে কাদের নাম প্রস্তাব করা যায়, সেটি জানতে চেয়ে স্থায়ী কমিটির সদস্যদের কাছে নাম চান তিনি। তারা (স্থায়ী কমিটির সদস্যরা) খালেদা জিয়ার কাছে পৃথকভাবে তাদের পছন্দের ব্যক্তিদের নাম দেন। কিন্তু কেউই কারো নাম দেখেননি। বিএনপি নেত্রী নামগুলো নিজের কাছে রাখেন। সেখান থেকে ৫টি নাম চূড়ান্ত করার ক্ষমতা স্থায়ী কমিটির সদস্যরা বিএনপির চেয়ারপারসনকে দেন। স্থায়ী কমিটির সদস্যদের দেওয়া নাম থেকে ৫ সদস্যের ছোট তালিকা এখন খালেদা জিয়ার হাতে।
নির্বাচন কমিশন নিয়ে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আলোচনায় ২০ দলীয় জোটের যেসব দল অংশ নিয়েছে তারাও পৃথকভাবে নাম প্রস্তাব করবে আজ।
৩১টি রাজনৈতিক দলের সঙ্গে আলোচনা করে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ যে সার্চ কমিটি করেছেন শনিবার সেই কমিটি প্রথম সভা করে। সভা শেষে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম জানিয়েছেন, যে ৩১টি দল রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়েছে, তাদের ৩১ জানুয়ারি বেলা ১১টার মধ্যে ৫টি করে নাম প্রস্তাব করতে বলা হয়েছে। পরে সময় আরো ৪ ঘণ্টা বাড়িয়ে বেলা ৩টা পর্যন্ত করা হয়েছে।