‘বোরকার নিচে লিপস্টিক’ ছবি নিয়ে কেন এত বিতর্ক

Print Friendly

ফের ভারতীয় সেন্সরবোর্ডের চোখ রাঙানি। এ বার টার্গেটে ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বুরখা’। টুইট করে এ খবর জানিয়েছেন অভিনেতা ও পরিচালক ফারহান আখতার। এ ছবির পরিচালক অলঙ্কৃতা শ্রীবাস্তবের কথায়, ‘আমি হেরে যাব না। সেন্সর বোর্ডের আপত্তির পর মনে হচ্ছে ভারতীয় দর্শকদের অবশ্যই ছবিটা দেখা উচিত। এ ছবি মুক্তিতে বাধা দিয়ে নারীর অধিকারে বাধা দিয়েছে সেন্সর কর্তারা। আমি এর শেষ দেখে ছাড়ব।’

অনুরাগ কাশ্যপের ‘উড়তা পঞ্জাব’ বিতর্কের পর থেকেই সমালোচিত হয়েছেন সেন্সর বোর্ডের প্রধান পহেলাজ নিহালনি। তাঁর এই সিদ্ধান্ত নিয়েও আলোচনা শুরু হয়েছে বিভিন্ন মহলে। পরিচালক প্রকাশ ঝা বলেছেন, ‘‘সিনেমা একটা চ্যালেঞ্জের মতো। আমাদের দেশে অবশ্যই যে কোনও কিছু প্রকাশের স্বাধীনতা থাকা উচিত। আমি মনে করি দর্শকদের ছবিটি দেখতে পাওয়াটা তাঁদের অধিকারের মধ্যেই পরে।’’

গত অক্টোবরে ইউটিউবে মুক্তি পায় ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বুরখা’র ট্রেলার। আর তার পরই ভাইরাল হয়ে ওঠে সোশ্যাল মিডিয়ায়। ট্রেলার শুরু হচ্ছে সেই সময়ের কথা দিয়ে যে সময় একটি মেয়ে মহিলা হয়ে উঠতে চায়। মাঝ বয়সে স্বামীর মৃত্যুর পর আরেক বার প্রেম করবার অনুমতি সমাজ তাঁকে দেয়নি। কিন্তু তাঁর মন তাঁকে সে অনুমতি দিয়েছে। আর সেই অতৃপ্ত হৃদয়ে বোরখার ভিতর দিয়ে সে বারবার দেখে ‘লিপিস্টিকওয়ালি ড্রিম’। হাঁটু বয়সী বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে নিজেকে ভাসিয়ে দেয় সুইমিং পুলে। শেষে ঘরের পুরুষকে প্রশ্ন করে ‘জীবনে শুধু বাচ্চা পয়দা করা ছাড়াও কি অন্য কোনও প্ল্যান আছে তোমার?’