বসন্তে ত্বকের পরিচর্যা

Print Friendly

মন কেমন করা হু হু বাতাস আর বাতাসভরা ফুলের গন্ধ জানান দেয় এখন বসন্ত। বসন্তে প্রকৃতি সেজে ওঠে বাহারে রঙে। আর সেই রঙের ছোঁয়া লাগে আমাদের জীবনযাপনেও। তবে সদ্য বিদায় নেয়া শীত তার স্মৃতিচিহ্ন রেখে যায় আমাদের ত্বকে। বসন্তে তাই নিজেকে নতুন করে রাঙিয়ে তুলতে প্রয়োজন কিছু যত্নের।

গোসলের আগে লেমন টারমারিক ক্রিম ব্যবহার করতে পারেন। এই ক্রিম শুধু ত্বক নরম করে না, সঙ্গে সঙ্গে ত্বকের কালোভাব, সানট্যানের দাগ দূর করতে সাহায্য করে। সাবান ও ক্লোরিনযুক্ত পানি ব্যবহারের ফলে ত্বকের যা ক্ষতি হয়, তা থেকে ত্বককে রক্ষা করতেও এই ক্রিম সাহায্য করে। হলুদের অ্যান্টিসেপ্টিক উপাদান ত্বকে ইনফেকশন প্রতিরোধ করে।

সূর্যের রশ্মির প্রভাবে অনেক সময় ত্বক ময়েশ্চার হারিয়ে ফেলে। তাই বাইরে বের হওয়ার আগে সানস্ক্রিন লাগাতে ভুলবেন না। মধু ব্যবহার করলে ত্বক ভালো থাকবে। মধু ন্যাচারাল ময়েশ্চারাইজারের কাজ করে। মধুর সঙ্গে অল্প আমন্ড অয়েল অথবা ডিমের কুসুম মিশিয়ে প্রতিদিন মুখে লাগান ১৫ মিনিট রেখে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ত্বকের ক্লান্তিভাব দূর করতে মুসুর ডালের পেস্ট ও ধনেপাতার রস মিশিয়ে মুখে আধ ঘণ্টা লাগিয়ে রাখুন। পরে ঠাণ্ডা পানির ঝাপটা দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ডাবের পানি, গোলাপ জল, পাতিলেবুর রস একসঙ্গে মিশিয়ে মুখে লাগান। আধঘণ্টা পর ধুয়ে ক্রিম লাগান। মুখের ছোপ দূর করতে টমাটো জুস, কাঁচা হলুদের রস ভূসিসমেত আটা মিশিয়ে মুখে, গলায় লাগান। গোলাপজল দিয়ে মুছে নিন।

বাড়িতে প্রি-বাথ ট্রিটমেন্টের জন্য বেসন, সামান্য দুধ বা দই হলুদ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। হাত, পা, গলা ও ঘাড়ে ভালো করে এই পেস্ট লাগান। ২০ মিনিট পর পানি দিয়ে আস্তে আস্তে ঘষতে থাকুন। গোসলের সময় পুরো পেস্টটা ধুয়ে ফেলুন। বেসন, হলুদের এই পেস্ট ক্লিনজারের কাজ করে। সাবান না ব্যবহার করলেও চলে।

এ সময় ত্বকে ময়েশ্চারের অভাব দেখা যায়, সঙ্গে সঙ্গে রক্ত সঞ্চালনও ব্যাহত হয়। এর ফলে শরীরের অন্যান্য অংশের তুলনায় পায়ের গোড়ালির ত্বক রুক্ষ ও ফেটে যায়। ডেড সেল জমতে শুরু করে। রাতে ঘুমাতে যাওয়ার আগে সামান্য গরম পানিতে ২০ মিনিট পা ডুবিয়ে রাখুন। পা ডোবানোর আগে পানিতে কোর্স সল্ট ও শ্যাম্পু মেশান। স্ক্রাবারের সাহায্যে গোড়ালি ঘষে ডেড সেল ঝরিয়ে ফেলুন। পা পরিষ্কার করার পরে ক্রিম ম্যাসাজ করুন।

কমলালেবুর রস ও ওটমিল সমপরিমাণে মিশিয়ে লাগান। পাকা পেঁপে চটকে মধু মিশিয়ে মুখে, হাতে, গলায় লাগান। বিশ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। গোলাপের পাপড়ি, দুধের সর বাটা, মধু মিশিয়ে লাগান। ২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।