নারী নির্যাতনের মামলায় ক্রিকেটার আরাফাত সানির জামিন নাকচ

Print Friendly

নারী নির্যাতনের মামলায় বাংলাদেশের জাতীয় দলের ক্রিকেটার আরাফাত সানির জামিন আবেদন নাকচ করে দিয়ে তাঁকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।
এছাড়া তাঁকে সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদনও খারিজ করে দিয়েছে আদালত। আজ রোববার ঢাকার মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারী দুটি আবেদন নাকচ করে দেন।
বাংলাদেশে তথ্য প্রযুক্তি আইনের একটি মামলায় গত ২২শে জানুয়ারি ক্রিকেটার আরাফাত সানিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
মি. সানির স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দেয়া এক তরুণীর করা তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় এর আগেও জামিন আবেদন নাকচ করে দেন আদালত।
ওই তরুণী আরাফাত সানির বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে বলেছেন, ফেসবুক মেসেঞ্জারে তাদের কিছু অন্তরঙ্গ ছবি পাঠিয়ে তাকে হুমকি দিয়েছেন এই ক্রিকেটার। তবে মি. সানি এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।
তথ্যপ্রযুক্তি আইনে করা মামলায় আগামী ১৫ই ফেব্রুয়ারি আরাফাত সানির জামিন শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। অন্যদিকে নারী নির্যাতনের মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ২রা মার্চ দিন ধার্য করা হয়েছে।
গত ১লা ফেব্রুয়ারি ঢাকার ৪ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে যৌতুকের জন্য মারধরের অভিযোগে ক্রিকেটার আরাফাত সানি ও মা নার্গিস আক্তারের বিরুদ্ধে তৃতীয় মামলা করেন মি: সানির স্ত্রী হিসেবে পরিচয় দেয়া ওই তরুণী। ওই দিনই বিচারক মামলাটিকে এজাহার হিসেবে নেওয়ার জন্য মোহাম্মদপুর থানাকে নির্দেশ দেন।