চির নিদ্রাই শায়িত হলেন শহীদ কামরুজ্জামানের স্ত্রী

Print Friendly

মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক জাতীয় ৪ নেতার অন্যতম শহীদ এএইচএম কামরুজ্জামান হেনার সহধর্মিনী জাহানারা জামান ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন)।
রবিবার দিবাগত রাত পৌনে ১টার দিকে রাজধানীর গুলশানের বাড়িতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করেন তিনি। তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর।
তিনি রাজশাহী সিটি কর্পোরেশনের সাবেক মেয়র আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও মহানগর সভাপতি এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটনের মা।
জাহানারা জামান দীর্ঘদিন থেকে ডায়াবেটিকসহ বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভুগছিলেন। মৃত্যুকালে তিনি দুই ছেলে, চার মেয়ে ও নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।
এ এইচ এম খায়রুজ্জামান লিটনের ব্যক্তিগত সহকারী ইমতিয়াজ আহমেদ লিমন জানান, জাহানারা জামানের মৃতদেহ রাজশাহীতে নেয়া হবে। রাজশাহী নগরীর কাদিরগঞ্জ এলাকায় পরিবারের গোরস্তানে শহীদ এ এইচ এম কামরুজ্জামানের কবরের পাশে তার দাফন সম্পন্ন হবে। মৃতদেহ কখন রাজশাহীতে নেয়া হবে বা জানাজা ও দাফন সম্পন্ন হবে তা এখনো নির্ধারণ করা হয়নি। তবে ছোট ছেলে দেশের বাইরে আছেন। তিনি এরই মধ্যে জিম্বাবুয়ে থেকে রওনা হয়েছেন। বাংলাদেশে পৌঁছালে জাহানারা জামানের জানাজা ও দাফনের সময়ের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন।
১৯৭৫ সালের ৩ নভেম্বর ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে জাতীয় ৪ নেতার অন্যতম রাজশাহীর এ এইচ এম কামরুজ্জামানকে হত্যা করা হয়। রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের সময় পঁচাত্তরের ২৩ আগস্ট ধানমন্ডির সরকারি বাসভবন থেকে তাকে ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।