বাণিজ্য মেলায় ৪১ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা

Print Friendly

অতিরিক্ত মূল্য আদায়, পণ্যে ভেজাল, ক্রেতাদের সঙ্গে প্রতারণাসহ নানা অভিযোগে বাণিজ্য মেলায় মোট ৪১ প্রতিষ্ঠানকে প্রায় ১২ লাখ টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর।

শনিবার মেলা প্রাঙ্গণে অবস্থিত অধিদফতর (অস্থায়ী কার্যালয়) এসব জরিমানা করেছে। অধিদফতরের সহকারী পরিচালক আব্দুল জাব্বার মন্ডল জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, এবার মেলায় মোট ৭০টি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে বেশকিছু প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ রয়েছে। অভিযোগকৃত প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে ৪১ প্রতিষ্ঠানকে বিভিন্ন জরিমানা করা হয়েছে। আর বাকি ২৯টি প্রতিষ্ঠানে সমঝোতার মাধ্যমে অভিযোগ নিষ্পত্তি করা হয়েছে। এছাড়াও পাপিন হাজীর বিরিয়ানিকে সাময়িক বন্ধ করা হয়েছে।

আব্দুল জাব্বার বলেন, ভোক্তাদের স্বার্থে এবার মেলায় প্রতিদিনই মনিটারিং ব্যবস্থা অব্যাহত ছিল। যারাই আইনের নির্দেশনা অমান্য করে অনৈতিকভাবে ব্যবসা করেছে তাদের বিরুদ্ধে আমারা ব্যবস্থা নিয়েছি।

এছাড়াও যে সব বিক্রেতাদের কাছে প্রতারিত হয়ে যেসব ক্রেতা আমাদের কাছে লিখিত অভিযোগ করেছে প্রমাণ সাপেক্ষে সেই সব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে জরিমানার ২৫ শতাংশ টাকা পুরস্কার হিসেবে অভিযোগকারীদেরকে প্রদান করা হয়েছে।

ভোক্তাদের উদ্দেশ্যে এ কর্মকর্তা বলেন, শুধু বাণিজ্য মেলা নয়। সারা বছরই ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতর বাজার মনিটারিংয়ে কাজ করে থাকে।

ভোক্তাদের পণ্য ও সেবা ক্রয় করার পূর্বে যাচাই-বাছাই করে নেয়ার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, এরপরও যদি প্রতারিত হন তাহলে ভোক্তা অধিদফতরে অভিযোগ করুন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।